২৯-মে-২০২৪
২৯-মে-২০২৪
Logo
রাজশাহী

ভ্যালেন্টাইন ডে ও মাতৃভাষা দিবস

নিজস্ব প্রতিনিধি

প্রকাশিতঃ ২০২৩-০২-১৪ ১৭:১০:২৮
...

এম এ রাজ্জাক, নওগাঁ প্রতিনিধি:

পাঁচ কোটি টাকার ফুল বিক্রির আশা নওগাঁ  চাষিদের নওগাঁর প্রায় ৮ গ্রামে হরেক রকমের ফুলে ছেয়ে গেছে। এ বছর ভালোবাসা দিবস, ফাল্গুন ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ঘিরে ৫ কোটি টাকার ফুল বিক্রির আশা করছেন চাষিরা। জেলায় এ বছর ১ কোটি ৬১ লাখ ৬০ হাজার পিস ফুল ‍উৎপাদনের আশা করছে কৃষি বিভাগ। মান্দা উপজেলার  গোবিন্দপুরসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার গ্রামে ৪০০ বিঘা জমিতে বাণিজ্যিকভাবে ফুল চাষ হচ্ছে। 

গাঁদা, চেরি, চন্দ্রমল্লিকা, জবা, সূর্যমুখি, গ্যালেরিয়া, ডালিয়া, স্টার, মাম, কাঠমালতি, বেলি, জারবেরা, জিপসিসহ দেশি বিদেশি অন্তত ৪০ প্রকারের ফুল এখানে চাষ হয়। দেশের প্রধান ফুল ব্যবসা কেন্দ্র রাজধানীর শাহবাগসহ বিভিন্ন জেলাতেও এখান থেকে ফুল সরবরাহ করা হয়।

তাই ফেব্রুয়ারি মাসের পহেলা ফাল্গুন ও বিশ্ব ভালোবাসা দিবস এবং আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে   গত পাঁচ মাস ধরে ফুল বাগানে দিনরাত শ্রম দিচ্ছেন ফুলচাষিরা। এ বছর ফলনও বেশ ভালো হয়েছে। এবার পাঁচ কোটি টাকার ফুল বিক্রির আশা করছেন চাষিরা।

এক চাষি বলেন, গাঁদা, চেরিসহ অনেক ধরনের ফুলই আমরা চাষ করে থাকি। এবার ভালো ফলন হয়েছে। বিক্রি হলে আশা করছি, লাভবান হব।

এদিকে বাগানের তাজা ফুলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে প্রতিদিন দূরদূরান্ত থেকে নানা শ্রেণিপেশার মানুষ পরিবার নিয়ে এখানে বেড়াতে আসেন। তারা জানান, এ সুন্দর একটা পরিবেশ। বিকালটা বেশ ভালো কাছে। ফুলের রং দেখলেও মনটা ভালো হয়ে যায়।

ফুল চাষ বাড়াতে কৃষকদের কারিগরি প্রশিক্ষণ দেয়াসহ কৃষি খণ দিয়ে সহায়তা করা হচ্ছে বলেও জানান নওগাঁর  কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর অতিরিক্ত উপপরিচালক আবু হোসেন । তিনি বলেন, ২৮ জনে দল করে আমরা বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকি। এ ছাড়া কৃষিঋণ দিয়েও ফুল চাষিদের সহায়তা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, জেলার ৬৯ হেক্টর জমিতে এ বছর ১ কোটি ৬১ লাখ ৬০ হাজার পিস ফুল ‍উৎপাদনের আশা করছে কৃষি বিভাগ। আর এখানে প্রায় ১৩ হাজার কৃষক ফুল চাষের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন।